x

এইমাত্র

  •  এসএসসি-সমমানে পাসের হার ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ
  •  পাসের হার ও সংখ্যায় এগিয়ে মেয়েরা
  •  বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছেন ৩ লাখ ৭১ হাজার ০২৩ জন
  •  বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ ২৭ লাখ ৩৮ হাজার ৪৬০ জন

মঠবাড়িয়ায় ধর্ষণের দায়ে দেবরের কারাদণ্ড

প্রকাশ : ২৭ আগস্ট ২০১৯, ১৯:১০

জাগরণীয়া ডেস্ক

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় বিধবা নারীকে ধর্ষণের দায়ে দেবর বাবুল হাওলাদার (২৮) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

২৭ আগস্ট (মঙ্গলবার) দুপুরে জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মিজানুর রহমান এ দণ্ডাদেশ দেন। একইসঙ্গে তাকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে এবং অনাদায়ে আরো এক বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের পিপি আব্দুল রাজ্জাক খান বাদশা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে আসামিপক্ষে কোনও আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন না।

দণ্ডপ্রাপ্ত বাবুল হাওলাদার উপজেলার কবুতরখালী গ্রামের মৃত প্রমাংশু হালদারের ছেলে। দণ্ডপ্রাপ্ত বাবুল হাওলাদার পলাতক রয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, স্বামীর মৃত্যুর পর বিধবা ঐ নারী তার ছয় বছরের শিশু সন্তানকে নিয়ে শ্বশুরবাড়িতেই থাকতেন। বিধবা বৌদিকে নানা সময় কুপ্রস্তাব দিতো দেবর বাবুল হাওলাদার। ২০১০ সালের ১৭ আগস্ট বাড়ির সবার চোখকে ফাঁকি দিয়ে বৌদিকে ধর্ষণ করে দেবর বাবুল। বিষয়টি পরে পারিবারিকভাবে জানাজানি হলে বিধবা পুত্রবধূকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত দেন পরিবারের লোকেরা। চাপের মুখে বিয়ে করে ২০১১ সালের ৮ মার্চ পর্যন্ত স্বামী-স্ত্রী হিসেবে সংসার শুরু করেন তারা। এতে ঐ নারী গর্ভবতী হয়ে পড়ে। গর্ভবতী স্ত্রীকে ঘরে রেখে বাবুল আবার বিয়ে করে এবং পূর্ববতী স্ত্রীকে অস্বীকার করে। নির্যাতিতা ওই নারী ২০১১ সালের ২৩ মার্চ বাবুলের বিরুদ্ধে মঠবাড়িয়া থানায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত