x

এইমাত্র

  •  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একদিনে ১৮ জন করোনায় আক্রান্ত
  •  ২০ মিনিটে করোনা টেস্টের ট্রায়াল শুরু যুক্তরাজ্যে
  •  গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় নতুন সংক্রমিত ১৬৯৩ জন, মৃত্যু ২৪
  •  বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছেন ৩ লাখ ৩৪ হাজার ৯৯৭ জন
  •  বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ ২০ লাখ ৯৪ হাজার ১৪৩ জন

স্বপ্না ভৌমিকের নেতৃত্বে চিকিৎসকদের জন্য তৈরি হচ্ছে ৪ লাখ সুরক্ষা পোশাক

প্রকাশ : ২২ মার্চ ২০২০, ১১:৪৫

জাগরণীয়া ডেস্ক

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) একদল অ্যালামনাই সদস্য করোনাভাইরাস মোকাবিলায় চিকিৎসকদের জন্য সুরক্ষায় পোশাক তৈরি করছেন। মার্কস অ্যান্ড স্পেনসারের (এমঅ্যান্ডএস) কান্ট্রি ডিরেক্টর স্বপ্না ভৌমিকের নেতৃত্বে এ পোশাক তৈরি করা হচ্ছে।

শনিবার (২১ মার্চ) রাতে নিজের ফেইসবুকে তিনি লেখেন, ‘বুয়েটের একদল অ্যালামনাই আর আমার দল মিলে তৈরি করছি পিপিই, সহযোগিতা করছে এফসিআই’। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিয়ে তারা এ পোশাক তৈরির উদ্যোগ নিয়েছেন। দেশের কঠিন এ পরিস্থিতিতে এ সব পোশাক চিকিৎসকদের দেয়া হবে বিনামূল্যে।

এগুলো বানানো হচ্ছে মার্ক্স অ্যান্ড স্পেন্সারের সঙ্গে নিয়মিত কাজ করা গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিগুলোতে। ১০-১২ দিনের মধ্যেই চার লাখ পোশাক তৈরি হয়ে যাবে।

মাহমুদা আপন নামে একজন ফেসবুকে লিখেছেন, জানলাম স্বপ্না ভৌমিকের কথা। বিশ্ববিখ্যাত পোশাক শিল্প প্রতিষ্ঠান মার্ক্স অ্যাণ্ড স্পেন্সার এর বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার তিনি। নিজের মাকে হারিয়েছেন মাত্র ২১দিন আগে। মা হারানো কষ্টগুলোও চাপা পড়েছে মানুষের কষ্টের চিন্তায়। কেননা গোটা দেশ আজ করোনার দুর্যোগে। স্যোসাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে করোনা নিয়ে নানা নেতিবাচক ও গুজবের সংবাদগুলো। কোথাও কোন ভাল খবর নেই। সাহসের জাতি আজ প্রায় মনোবল হারাতে বসেছে। কিন্তু স্বপ্না ভৌমিক বা তার প্রতিষ্ঠান মার্কস এন্ড স্পেন্সার বাংলাদেশ তা করেনি। দেশের হাসপাতাল ও মেডিক্যাল কলেজগুলোতে করোনা ভাইরাস নিয়ে কাজ করা ডাক্তার, নার্স এবং রোগীদের জন্য Personal Protective Equipment তৈরী করছেন তারা। আজ সারাদিনে যোগাড় করেছেন কাপড়, চূড়ান্ত করেছেন ডিজাইন এবং সন্ধ্যায় পেয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতিও। রাত থেকেই শুরু হয়েছে পিপিই তৈরির কাজ। এ কাজে সহায়তা করছে তাদের নিয়ন্ত্রণাধীন গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীগুলো। ১০/১২ দিনের মধ্যেই তৈরি হয়ে যাবে ৪ লক্ষ PPE । যা বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে হাসপাতালগুলোতে। স্বপ্না ভৌমিককে অভিবাদন জানাই। মরার আগে মরলে চলবে না আমাদের। সবাই সবার জায়গা থেকে প্রয়োজন অনুসারে সহযোগিতায় এগিয়ে আসুন। কাজ করুন করোনা মুক্ত বাংলাদেশের স্বপ্নে।

উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ২৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন আর দুজন মারা গেছেন। করোনা মোকাবিলায় দেশের চিকিৎসকদের জন্য পারসোনাল প্রটেকটিভ ইকুইপমেন্টের (পিপিই) নেই বলে চারদিক থেকে অভিযোগ ওঠে। যা দেশজুড়ে করোনা মোকাবিলার ক্ষেত্রে চিকিৎসকদের জন্য বাধা হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছিল। তবে এ কঠিন সময়ে স্বপ্না ভৌমিক জানালেন সুখবর।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত