x

এইমাত্র

  •  দেশে আরও ৯ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ২ জনের
  •  চট্টগ্রামে প্রথম করোনা শনাক্ত; ৩ চিকিৎসকসহ ১৮ জন কোয়ারেন্টিনে
  •  রোববারের মধ্যে ১০ টাকা চালের বেনামি কার্ড জমা দেয়ার নির্দেশ

উপজেলা পরিষদে বিজয়ী অ্যাথলেট মর্জিনা

প্রকাশ : ২৬ মার্চ ২০১৯, ১৬:২২

জাগরণীয়া ডেস্ক

উচ্চ লাফে স্বর্ণ পদক পেয়েছেন, অংশ নিয়েছেন শটফুটসহ বিভিন্ন খেলায়। ছিলেন জাতীয় নারী ফুটবল দলের সদস্যও। বিজেএমসি ও বাংলাদেশ আনসারের হয়ে খেলেছেন তিনি। আর এখন হয়েছেন সাঁতারু সংগঠক। এতো সব গুণের সমাহার যে অ্যাথলেটের মধ্যে সেই মর্জিনা খাতুন এবার বিজয়ী হয়েছেন কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলা পরিষদে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে।

মর্জিনা খাতুনের জন্ম ১৯৭০ সালে। বাবা শহীদ মুক্তিযোদ্ধা মধু মণ্ডল। মর্জিনার পৈতৃক বাড়ি কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলার মুচাইনগরে। বড় ভাই আমিরুল ইসলাম দেশের অন্যতম সাঁতার প্রশিক্ষক। মূলত তার সাথে থেকেই ১৯৯৬ সাল থেকে সাঁতারু তৈরির সংগঠক হয়ে উঠেন মর্জিনা। গ্রামে গ্রামে ঘুরে সাঁতারু খুঁজে বের করেন তিনি। আমলা এলাকায় তিনটি সাঁতার সংগঠন সাগরখালী, গড়াই ও লালন শাহ সুইমিং ক্লাবের সাঁতার প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করছেন। শুধু তাই নয়, লালন শাহ সুইমিং ক্লাবের সভাপতিও তিনি। এ তিনটি ক্লাবে রয়েছে শতাধিক সাঁতারু যারা দেশে-বিদেশে নিজেদের কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছেন।

নিজের সন্তানদেরও দক্ষ সাঁতারু হিসেবে গড়ে তুলেছেন মর্জিনা। তার ছেলে আসিফ রেজা নৌ বাহিনীতে চাকরি করেন এবং জাতীয় পর্যায়ের সাঁতারু। মেয়ে খাদিজা আক্তার বৃষ্টিও জাতীয় সাঁতারু। বিকেএসপিতে উচ্চমাধ্যমিকে পড়ছে সে। 

গত ২৪ মার্চ (রবিবার) তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলা পরিষদে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বেসরকারি ভাবে জয়ী হন মর্জিনা খাতুন। তিনি মোট ৪৫ হাজার ৮৭৬ ভোট পান। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শারমিন আক্তার পান ৩৯ হাজার ৩১২ ভোট।

নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসেবে নিজ এলাকায় অন্যান্য উন্নয়নমূলক কাজের পাশাপাশি দক্ষ সাঁতারু গড়ে তুলতে সব ধরণের কার্যক্রম অব্যাহত রাখবেন বলে জানিয়েছেন মর্জিনা খাতুন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত