x

এইমাত্র

  •  ৪ কার্যক্রম নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কর্মপরিকল্পনা ঘোষণা
  •  যুক্তরাষ্ট্রের নতুন রেকর্ড, একদিনে প্রাণ গেল ১২২৪ জনের
  •  করোনায় অর্থনীতির প্রভাব নিয়ে সতর্ক করলেন প্রধানমন্ত্রী
  •  ১০ টাকা কেজি দরে খোলা বাজারে (ওএমএস) চাল বিক্রি শুরু করেছে সরকার

জুতা কেনার সময় মনে রাখতে হবে যে জিনিসগুলো

প্রকাশ : ১৩ জুলাই ২০১৬, ১১:১৪

জাগরণীয়া ডেস্ক

জুতা কেনার সময় কিছু দিক বিবেচনা করা উচিৎ যেটা অনেক মেয়েরা অনেক সময়ই করেনা। তার ফলে জুতা পরতে নানান অস্বস্তিতে পরতে হয়। জুতা কেনার সময় এটা মনে রাখতে হবে যে কত দিন ধরে আপনি একই মাপের জুতা পায়ে দিচ্ছেন? একটা বিষয় মাথায় রাখা জরুরি, নারীদের পায়ের মাপ সময় সময় বদলায়। বয়স বৃদ্ধির বিষয়টা তো আছেই, এ ছাড়া মুটিয়ে গেলে কিংবা ওজন হ্রাস পেলে অথবা গর্ভকালে নারীদের পা কিছুটা ছোট-বড় হয়। এসব জানা সত্ত্বে জুতা কিনতে গিয়ে মেয়েরা কিছু ভুল করেন। এর মধ্যে তিনটি ভুল প্রায় অনেকেরই হয়।

১। ক্রেতারা মনে করেন একটু আঁটসাঁট জুতা কেনাই ভালো। কয়েক দিন পায়ে দেওয়ার পর জুতাজোড়া খানিকটা ঢিলেঢালা হবে। অথচ প্রতি ১০টির মধ্যে নয়টি ক্ষেত্রেই এমনটি হয় না। এ কারণে পায়ে জুতা গলিয়ে খুব একটা আরাম বোধ করেন না তারা। বরং একধরনের অস্বস্তিতে থাকেন। তাই জুতা কেনার সময় ওই মুহূর্তের ওপরই জোর দিতে হবে। বিশেষ করে হিল কিনতে গিয়ে কখনো এমন চিন্তা করবেন না যে এখন নয়, ভবিষ্যতে সেগুলো আপনার পায়ে ঠিকমতো লাগবে।

২। নারীরা যে ভুলটি করেন তা হলো, সকালে কিংবা দিনের শুরুর দিকে জুতা কিনতে যান। এটা উপযুক্ত সময় নয়। হিল কিনতে হবে বিকেলে কিংবা সন্ধ্যার দিকে। কারণ, দিন শেষে আমাদের পা কিছুটা স্ফীত বা স্থূল হয়।

৩। সচরাচর আরেকটা ভুল করেন কোনো কোনো নারী। আর তা হলো, দূরের পথের জন্য কিংবা দীর্ঘ সময়ের জন্য হিল পরেন। কাজে কিংবা কোনো অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পোশাকের সঙ্গে মানানসই হিল পরতে চান, পরুন। কিন্তু পাশাপাশি একজোড়া আরামদায়ক জুতা সঙ্গে রাখতে ভুলবেন না। দীর্ঘক্ষণ হিল পায়ে রাখার পর অস্বস্তি বোধ করলে কিংবা অনুষ্ঠান শেষে ঝটপট ওই আরামদায়ক জুতা পরে নিতে পারেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত