x

এইমাত্র

  •  জুনে ধর্ষণের শিকার শতাধিক নারী-শিশু: মহিলা পরিষদ
  •  ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ সস্ত্রীক কোভিডে আক্রান্ত
  •  গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় নতুন সংক্রমিত ৩৭৭৫ জন, মৃত ৪১ জন
  •  বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছেন ৫ লাখ ১৮ হাজার ৯৬৮ জন
  •  বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ ৬০ লাখ ২৮ হাজার ২২৯ জন

সুস্থ শিশু জন্ম দিতে চাই দূষণমুক্ত পরিবেশ

প্রকাশ : ০১ জানুয়ারি ২০১৮, ২১:১৫

জাগরণীয়া ডেস্ক

শিশুদের বুদ্ধির বিকাশ কতটা হবে তা নির্ভর করে বাতাসে দূষণের মাত্রার উপরে। নতুন এক গবেষণা থেকে এমনই তথ্য উঠে এল। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ‘জার্নাল অফ পেডিয়াট্রিকস’-এ এই গবেষণা প্রকাশিত হয়।

এই গবেষণাতে উঠে এসেছে, প্রসূতি অবস্থায় কোন নারী দূষণের সাক্ষী হলে, তার প্রভাব সরাসরি পড়ে গর্ভে থাকা শিশুর উপরে। মাতৃগর্ভে থাকাকালীন, দূষিত বাতাস মার শরীরে ঢুকলে শিশুর মানসিক বিকাশ তুলনামূলক ভাবে কম হয়। এ ছাড়া, শিশু কিছু শারীরিক ত্রুটি নিয়েও জন্মাতে পারে। ক্লেফট লিপ বা ঠোঁটের বিকৃত আকৃতি, হার্টের সমস্যা ইত্যাদি নিয়েই শিশুর জন্ম হতে পারে।

বাতাসে দূষণ শিশুদের বিকাশের উপরে কী প্রভাব ফেলে— এর উপরে গবেষণাটি করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরিবেশ সুরক্ষা সংস্থা। 

শুধু বুদ্ধির বিকাশে ব্যাঘাত বা শারীরিক ত্রুটি নয়, প্রসূতি মা দূষিত পরিবেশের মধ্যে থাকলে, জন্মের পরে তার শিশুর মানসিক সমস্যাও দেখা দিতে পারে।

গবেষণা থেকে এমন জানা গেলেও, দিনের পরে দিন বাতাসে দূষণের মাত্রা বাড়ছে। তাই অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীন নারীদের দূষণমুক্ত পরিবেশে থাকা উচিত বলে পরামর্শ দিচ্ছেন গবেষকরা।

বাড়ির ভিতরে থাকলেই যে দূষণমুক্ত থাকা যাবে, তা নয়। যেভাবে দূষণের মাত্রা বাড়ছে, তাতে বাড়ির ভিতরেও দূষিত বাতাসের অস্তিত্ব থাকে। তাই বাড়িতেও অন্তঃসত্ত্বা থাকলে নিয়মিত ঘর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা প্রয়োজন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত