x

এইমাত্র

  •  করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে ষষ্ঠ ব্যক্তির মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত তিনজন
  •  বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু ৪২ হাজার ছাড়াল, আক্রান্ত সাড়ে ৮ লাখের বেশি মানুষ
  •  করোনা ভাইরাস মহামারি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর পৃথিবীর জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ
  •  ৩০০ দুস্থ ও অসহায় মানুষকে খাওয়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জেমি ডে

আন্দোলনে শাবিপ্রবি প্রশাসনের পিছুটান, ক্যাম্পাসে মিষ্টি বিতরণ

প্রকাশ : ১৯ অক্টোবর ২০১৬, ১৬:১২

জাগরণীয়া ডেস্ক

সাধারণ শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে অবশেষে পিছু হটতে বাধ্য হয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। দাবি মেনে নিয়ে ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক ভর্তি ফরমের মূল্য কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়।

শাবিপ্রবিতে এবার ভর্তি পরীক্ষার ফরমের মূল্য নির্ধারণ করা হয় ১০০০-১২০০ টাকা যা ২০১৫ সালের তুলনায় ৩৩ শতাংশ বেশি। ২০০৮ সালের বিবেচনায়, এবছর দুই ইউনিট মিলিয়ে গড়ে প্রায় ২৩৯ শতাংশ বেড়েছে ভর্তি আবেদন ফি। এই ফি বৃদ্ধিকে প্রতিবছর ‘মূল্য স্ফীতির কারণে আনুষঙ্গিক খরচ বৃদ্ধি’ দেখিয়ে ন্যায্য বলে দাবি করে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি কমিটি। 

কিন্তু সরকারের ভর্তুকি সত্ত্বেও এবং শিক্ষদের বেতন কাঠামোর সাথে তুলনা করে প্রতিবছর ভর্তি আবেদন ফি এবং সেমিস্টার ও ক্রেডিট ফি বৃদ্ধি অযৌক্তিক এবং সমর্থনযোগ্য নয় বলে গত ১২ অক্টোবর থেকে ভর্তি ফি কমানোর দাবিতে আন্দোলনে নামে শাবিপ্রবির সাধারণ শিক্ষার্থীরা। তাদের এই আন্দোলনের সাথে অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবাল সহ অনেক শিক্ষক একাত্মতা ঘোষণা করেন। 

সপ্তাহ ব্যাপী শিক্ষার্থীদের তুমুল আন্দোলনের ফলে আজ বুধবার একাডেমিক কাউন্সিল এর জরুরি বৈঠক ডাকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। একই সময়ে সকাল ৯টা থেকে প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও করে রাখে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

অবশেষে বুধবার দুপুর ২টার দিকে একাডেমিক কাউন্সিল এর বৈঠক শেষে এবছর ভর্তি ফি কমিয়ে ৮০০-৯০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে বলে ভর্তি কমিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়।

আন্দোলনের মাধ্যমে বিজয় ছিনিয়ে এনে আনন্দিত শিক্ষার্থীরা ক্যম্পাসে নিজেদের মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করেছেন। এই আন্দোলনকে ভবিষ্যতে বিশ্ববিদ্যালয়ে যেকোন অন্যায় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ছাত্রছাত্রীদের প্রতিবাদ করার মাইলফলক হিসেবে দেখছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত