x

এইমাত্র

  •  করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে ষষ্ঠ ব্যক্তির মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত তিনজন
  •  বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু ৪২ হাজার ছাড়াল, আক্রান্ত সাড়ে ৮ লাখের বেশি মানুষ
  •  করোনা ভাইরাস মহামারি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর পৃথিবীর জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ
  •  ৩০০ দুস্থ ও অসহায় মানুষকে খাওয়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জেমি ডে

আইরিনের মেডিকেল কলেজে ভর্তির অনিশ্চয়তা দূর

প্রকাশ : ১৮ অক্টোবর ২০১৬, ১৩:৪৫

জাগরণীয়া ডেস্ক

নীলফামারীর সৈয়দপুরের অদম্য মেধাবী আইরিন আক্তার রিনার মেডিকেল কলেজে ভর্তির অনিশ্চয়তা দূর হয়েছে। তাঁর মেডিকেল কলেজে ভর্তির জন্য সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদ সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।

‘অর্থাভাবে আইরিনের মেডিকেলে ভর্তি অনিশ্চিত’ শিরোনামে খবরটি প্রকাশিত হলে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আবু ছালেহ মোঃ মুসা জঙ্গীর নজরে আসে। তিনি সংবাদকর্মীসহ বিভিন্ন মাধ্যমে ওই মেধাবী শিক্ষার্থীর বিষয়ে সার্বিক খোঁজখবর নেন। সেই সঙ্গে তিনি তাৎক্ষণিক বিষয়টি নিয়ে সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আজমল হোসেনের সঙ্গেও কথা বলেন।

সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান  মোঃ আজমল হোসেন ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আবু ছালেহ মোঃ মুসা জঙ্গী মেধাবী ছাত্রী রিনাদের উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের কিসামত কামারপুকুর মিস্ত্রীপাড়ার বাড়িতে ছুটে যান। সেখানে গিয়ে তারা প্রথমে মেডিকেল কলেজ ভর্তি পরীক্ষায় ভাল ফলাফলের জন্য মেধাবী রিনা ও তাঁর পরিবারের সদস্য আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।  মেডিকেল কলেজে ভর্তির জন্য সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে অদম্য রিনাকে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করেন।

প্রসঙ্গত, উপজেলা কামারপুকুর ইউনিয়নের কিসামত কামারপুকুর মিস্ত্রীপাড়ার ইউনুস আলী ও মোছাঃ বেলী বেগম দম্পতির মেয়ে আইরিন আক্তার রিনা। রিনার বাবা পেশায় একজন দিনমজুর। সৈয়দপুর সরকারি কারিগরি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয় সে (রিনা)। আর  সে মেডিকেল কলেজে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। কিন্তু অভাবী পরিবারের মেয়ে আইরিন আক্তার রিনা মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেলেও অর্থাভাবে তার ভর্তি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত