x

এইমাত্র

  •  বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ ৬৩ লাখ ৪২ হাজার ৮৫০ জন
  •  বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছেন ৫ লাখ ২৯ হাজার ১৯৭ জন
  •  রেমডেসিভির ব্যবহারের ছাড়পত্র দিল ইইউ
  •  ইতালি গিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না বাংলাদেশিরা, আক্রান্ত ৭

স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধিতে গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের “নিউট্রিশন ক্যাম্পেইন”

প্রকাশ : ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬:০৫

জাগরণীয়া ডেস্ক

খাদ্য ও পুষ্টিবিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে রাজধানীর আজিমপুরে অবস্থিত গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের ''নিউট্রিশন ক্লাব"র উদ্যোগে নিয়মিত অনুষ্ঠিত হয় “নিউট্রিশন ক্যাম্পেইন”। এই ক্যাম্পেইনটিতে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবকদের মাঝে খাদ্যাভ্যাস বিষয়ক নানা পরামর্শ দিয়ে থাকে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

তারই ধারাবাহিকতায় বিগত তিনটি ক্যাম্পেইন সফলতার সাথে সম্পন্ন করার পর ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ সালে চতুর্থ বারের মতো অত্যন্ত সাফল্যমণ্ডিত ভাবে, গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজ অডিটোরিয়ামে আয়োজিত হল “নিউট্রিশন ক্যাম্পেইন-৪”।

এবারের ক্যাম্পেইনটিতে বিভিন্ন শ্রেণী, পেশা ও বয়সের প্রায় ৪ শতাধিক ব্যক্তির ওজন, উচ্চতা, বি.এম.আই (BMI), রক্তচাপ পরিমাপ করার মাধ্যমে তাদের পুষ্টিগত অবস্থা নিরুপন করে, স্বাস্থ্যকর উপায়ে জীবন-যাপনের একটি দিক নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

সকাল ১০.০০ টায় ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন অধ্যক্ষ প্রফেসর ইসমাত রুমিনা এবং খাদ্য ও পুষ্টিবিজ্ঞান বিভাগের প্রধান প্রফেসর নার্গিস আক্তার জাহান। এরপর হতে দুপুর ২.০০ টা পর্যন্ত ক্যাম্পেইনের সকল কর্মসূচি চলতে থাকে।

এবারের ক্যাম্পেইনে বিভিন্ন বর্ষের প্রায় ৮০ জন শিক্ষার্থী  সর্বমোট ৯ টি টীম এ ভাগ হয়ে কাজ করেছে। টীম গুলো হল- হাইট টীম, ওয়েট টীম, বি.এম.আই টীম, ব্লাড প্রেসার টীম, কোয়েশ্চেন টীম, ডায়েটারি গাইডলাইন টীম, পোস্টারিং টীম, ভলান্টিয়ার টীম, রেজিস্ট্রেশন টীম ইত্যাদি।

এই ক্যাম্পেইনটি শুধুমাত্র গাহর্স্থ্য অর্থনীতি কলেজের শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের জন্য উন্মুক্ত ছিলো।

ক্যাম্পেইনে আগত শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে জানা যায় যে, "নিউট্রিশন ক্লাব" কতৃক আয়োজিত এই ক্যাম্পেইনটি তাদের ও তাদের পরিবারের খাদ্যাভ্যাসে ইতিবাচক পরিবর্তনের পাশাপাশি তাদেরকে স্বাস্থ্য বিষয়ে আরও সচেতন হতে সাহায্য করেছে।

এবারের ক্যাম্পেইনের বিশেষ আকর্ষণ ছিল চাইল্ড কর্ণার। যেখানে বিভিন্ন খেলা, পাজেল, পোষ্টার, দেশি-বিদেশি কার্টুন চরিত্রের ছবি দ্বারা ৪ থেকে ১০ বছর বয়সী শিশুদের সহজে পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার সম্পর্কে শিক্ষা দেওয়া হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত