x

এইমাত্র

  •  এসএসসি-সমমানে পাসের হার ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ
  •  পাসের হার ও সংখ্যায় এগিয়ে মেয়েরা
  •  গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় নতুন সংক্রমিত ২৫৪৫ জন, মৃত্যু রেকর্ড ৪০ জন
  •  বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছেন ৩ লাখ ৭১ হাজার ০২৩ জন
  •  বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ ২৭ লাখ ৩৮ হাজার ৪৬০ জন

বাড়ি ফেরার পথে স্কুলছাত্রীকে নির্যাতন

প্রকাশ : ২৩ অক্টোবর ২০১৬, ১৭:৪৫

জাগরণীয়া ডেস্ক

গাইবান্ধা সদর উপজেলায় ষষ্ঠ শ্রেণি পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে মারধর ও মাথার চুল কেটে দিয়েছে প্রতিবেশী যুবকরা। বিরোধের জের ধরে শনিবার (২৩ অক্টোবর) দুপুরে এই ঘটনা ঘটে। তার বাড়ি সদর উপজেলার বোয়ালী ইউনিয়নের রাধাকৃষ্ণপুর ইটলিরভিটা গ্রামে।

রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের হরিণসিংহা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে ঘটনার শিকার হন ওই স্কুলছাত্রী।

এ ঘটনায় মামলা হলে অভিযুক্ত বাটুল মিয়া (৫০) ও তার ভাই আবদুস সালামকে (৪৮) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মামলার এজাহার ও ঘটনার শিকার হওয়া মেয়েটির পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, একই গ্রামের বাটুল মিয়ার একটি ছাগল শুক্রবার প্রতিবেশী নুরু মিয়ার ছেলে আজাদ হোসেনের জমির ফসল খায়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে আজাদ হোসেন ছাগলটিকে মেরে ফেলে। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে শালিস বৈঠকে ছাগলের মূল্য পরিশোধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

শনিবার সকালের মধ্যে ওই টাকা পরিশোধের কথা ছিল।

কিন্তু টাকা পরিশোধ না করায় দুই প্রতিবেশীর মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হয় ও উত্তেজনা দেখা দেয়। এরই মধ্যে ওই মেয়েটি স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে বাটুল মিয়ার ছেলে আরিফ মিয়া (২০), আলম মিয়ার ছেলে রাকিব মিয়া (১৮) ও আব্দুস সালামের ছেলে আশিক মিয়া (১৮) তার পথরোধ করে আটক করে।

এরপর তারা মেয়েটিকে মারধর করে তার হাতের ঘড়ি, গলার চেন ছিনিয়ে নেয়। এক পর্যায়ে তাদের হাতে থাকা কাঁচি দিয়ে মেয়েটির মাথার চুল কেটে ফেলা হয়।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মেহেদী হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে সদর থানায় ৬ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এরপর অভিযান চালিয়ে বাটুল মিয়া ও তার ভাই আব্দুস সালামকে আটক করা হয়। অভিযুক্ত অপর তিন যুবককে গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত