x

এইমাত্র

  •  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একদিনে ১৮ জন করোনায় আক্রান্ত
  •  ২০ মিনিটে করোনা টেস্টের ট্রায়াল শুরু যুক্তরাজ্যে
  •  গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় নতুন সংক্রমিত ১৬৯৩ জন, মৃত্যু ২৪
  •  বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছেন ৩ লাখ ৩৪ হাজার ৯৯৭ জন
  •  বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ ২০ লাখ ৯৪ হাজার ১৪৩ জন

টাঙ্গাইলে পাকিস্তানি কিশোরী ধর্ষণ, মূল হোতা গ্রেপ্তার

প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ২৩:২৮

জাগরণীয়া ডেস্ক

টাঙ্গাইলের গোপালপুরে বাংলাদেশে বেড়াতে আসা পাকিস্তানি এক কিশোরীকে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি আল-আমিনকে (২০) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

গ্রেপ্তার আল-আমিন টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে। ২৩ এপ্রিল (মঙ্গলবার) সকালে কুড়িগ্রাম জেলার রাজিবপুর থানার পঞ্চনগর গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

মঙ্গলবার বিকেলে সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার চড়ি এলাকায় র‌্যাব-১২ এর সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১২ এর অধিনায়ক আব্দুল্লাহ আল মোমেন জানান, চাকরির সুবাদে গোপালপুর এলাকার বাংলাদেশি এক নাগরিক পাকিস্তানে বসবাস করেন। প্রায় ২০ বছর আগে পাকিস্তানের এক মেয়েকে বিয়ে করে সেখানকার নাগরিক হয়ে যান তিনি। তাদের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। পিতৃভূমি দেখার জন্য ৫ মাস আগে মেয়েটি তার মাকে সঙ্গে নিয়ে গোপালপুরে চাচার বাড়িতে বেড়াতে আসে।

বাংলাদেশে আসার পর থেকে ঐ কিশোরীর আরেক চাচার ছেলে আল-আমিন তাকে উত্ত্যক্ত করতে শুরু করে। গত ১৬ এপ্রিল রাত সাড়ে ৯টার দিকে ঐ কিশোরীকে একা পেয়ে আল-আমিন তার সহযোগীদের সহায়তায় মেয়েটিকে অপহরণ করে মোটরসাইকেলে করে নিয়ে যায়। পরদিন ১৭ এপ্রিল ঐ কিশোরীকে ধর্ষণ করে জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ি থানার মহিষাকান্দি এলাকায় ফেলে রেখে যায় আল-আমিন। 

এ ঘটনায় ভিকটিমের মা বাদী হয়ে থানায় মামলা একটি দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব সদস্যরাও আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান শুরু করে। অবশেষে মঙ্গলবার সকালে কুড়িগ্রামের রাজিবপুর থানার পঞ্চনগর গ্রামে অভিযান চালিয়ে মামলার প্রধান আসামি আল-আমিনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত