x

এইমাত্র

  •  চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মৃতদেহ হস্তান্তর শুরু করেছে ঢাকা মেডিকেল
  •  চকবাজারের ঘটনায় শিল্পমন্ত্রণালয়ের ১২ সদস্যের তদন্ত কমিটি ঘোষণা

ধর্ষককে আঘাত করে ধর্ষণের হাত থেকে রক্ষা!

প্রকাশ : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:৩৭

জাগরণীয়া ডেস্ক

আবারও নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলায় ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে ধর্ষককে আঘাত করে শেষ পর্যন্ত ধর্ষণের হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করেছেন ঐ দুই সন্তানের জননী (৩০)।

৭ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) রাতে কবিরহাট উপজেলার ধান শালিক ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ ওঠা ব্যক্তির নাম মো. মানিক (৩৫)। বাড়ি উপজেলার ধান শালিক ইউনিয়নের চর গুল্লাখালী গ্রামে। 

ঐ নারী জানান, ধর্ষণের চেষ্টাকারী ব্যক্তি মানিককে দা দিয়ে আঘাত করে আত্মরক্ষা করেন তিনি। মানিক শরীরে জখম নিয়ে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে মামলা হলে ৮ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) সকালে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মির্জা মোহাম্মদ হাছান বলেন, কিছুদিন ধরে ভুক্তভোগী নারী ও তার স্বামীর বনিবনা হচ্ছিল না। তখন দুজনের মধ্যে মিলমিশ করে দেওয়ার কথা বলেন একই এলাকার বাসিন্দা এবং ওই নারীর স্বামীর বন্ধু মানিক। এ জন্য তিনি ওই নারীকে একটি তাবিজ এনে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলে গৃহবধূ এতে রাজি হন। বৃহস্পতিবার রাত আটটার দিকে মানিক তাবিজ নিয়ে গৃহবধূর ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় গৃহবধূ ঘরে থাকা দা দিয়ে মানিককে আঘাত করলে মানিক আহত অবস্থায় দৌড়ে পালিয়ে যান। পরে গৃহবধূ ও তার সন্তানদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এলে ঘটনা জানাজানি হয়।

ওসি আরো জানান, মানিকের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী গৃহবধূ বাদী হয়ে মামলা করেছেন। 

উল্লেখ্য, এর আগে গত ১৮ জানুয়ারি রাতে একই উপজেলার ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের নবগ্রামে সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে এক গৃহবধূকে (২৭) গণধর্ষণ করা হয়। ঐ ঘটনার তিন সপ্তাহের মাথায় এবার পাশের ধান শালিক ইউনিয়নে গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টার ঘটনা ঘটলো।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত